বাংলা / Wordpress

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইট কে সুপার ফাস্ট করবেন ?

একটি সাইট এ ভিসিটর বাড়ানোর প্রথম ধাপই হচ্ছে সাইট ফাস্ট থাকা । আপনার সাইট যদি স্লও থাকে ফলে ভিসিটর যদি ঠিক মত ঢুকতেই না পারেন তাইলে বিরক্ত হয়ে আপনার সাইট এ দ্বিতীয় বার আর ঢুকার চেষ্টা করবে না । তা ছাড়া SEO তে ও সাইট স্পীড অনেক ভূমিকা রাখে । তো বুঝতেই পারছেন কতটা জরুরী সাইট ফাস্ট থাকা ।

আজকে আপনাদের প্রায় সব মূল কাজগুলোই দেখাব কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট কে ফাস্ট করবেন । চলুন শুরু করি ।

শুরু করার আগে এখান থেকে আপনার সাইট এর বর্তমান স্পীড মেপে নিন । নিচের কাজগুলো করার পর আমরা দেখবো কত টুকু সফল হয়েছি ।

speed test

বেসিক কাজ দিয়ে শুরু করিঃ

প্লাগিন সংখ্যা কম রাখুন । বেশি প্লাগিন ব্যাবহারের ফলে সাইট স্লও হয়ে যায় । ঠিক মত প্লাগিন সিলেক্ট করবেন । যেই প্লাগিন এ যত বেশি অপশন মনে রাখবেন ঐ প্লাগিন এ তত বেশি কোড সুতরাং তত বেশি স্লও করবে । একটি কাজের জন্য অনেকগুলো প্লাগিন থাকতে পারে । এর মধ্যে যেটাতে আউট জিনিস কম থাকবে ওটা ব্যাবহার করবেন ।

wordpress plugins

Spam Comments ডিলিট করে দিন । হাজার হাজার স্পাম কমেন্ট ডাটাবেজ এ থাকলে সাইট স্লও হয়া স্বাভাবিক । প্রত্যেক দিন স্পাম কমেন্ট মনে করে ডিলিট করে দিবেন ।

spam comments

post revisions ডিলিট করুন । স্পাম কমেন্ট ডিলিট এর মতই post revisions  ডিলিট করুন । post revisions  হচ্ছে আপনি যখন একটা পোস্ট এডিট করে সেভ করেন তখন ওটার একটা কপি ডাটাবেজ এ সেভ হয়ে যায় । এভাবে যতবার এডিট করে সেভ করবেন ততো বার একটা করে নতুন কপি ডাটাবেজ এ যুক্ত হবে । ফলে দেখা যায় একটা পোস্ট এর অনেক গুলো কপি তৈরি হয়ে গেছে । যা ডাটাবেজ কে স্লও করে দেয় । Better Delete Revision Plugin এর সাহায্যে আপনি এই post revisions গুলো ডিলিট করতে পারবেন । তা ছাড়া আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এর Auto Save আর post revisions এই ২ তা সিস্টেম সম্পূর্ণ ভাবেই বন্ধ করে দিতে পারেন । গুগল করুন কিভাবে করে তা পেয়ে যাবেন ।

delete post revisions

একটি ভালো Hosting সাইট থেকে hosting নিনঃ

ওয়ার্ডপ্রেস একটি গাড়ির মত । এটা ততোক্ষণ ঠিক মত চলবে যতক্ষণ এটাকে ঠিক মত জ্বালানি দিবেন ।

pumping gas

Hosting নেয়ার আগে ঠিক মত জেনে নিবেন তাদের সার্ভার ২৪ ঘণ্টা আপ থাকে নাকি , তাদের ব্যান্ডউইথ স্পীড কত , তাদের CPU এর কনফিগারেশান । এগুলো জেনে ঠিক মত ভেবে তারপর Hosting নিবেন ।

আপনার সাইট এর Theme ঠিক ভাবে বাছাই করুনঃ

সাইট এর স্পীড অনেকাংশে থিম এর উপর নির্ভর করে । আলতু ফালতু থিম ব্যাবহার থেকে বিরত থাকুন । থিম নেয়ার আগে সেটার Rating কত , তারপর Support Forum এ গিয়ে দেখবেন সেটার সম্পর্কে কোন অভিযোগ আছে কিনা । থিম বাছাই এর সময় নিচের জিনিসগুলো মাথায় রাখবেনঃ

  • স্পীড যাতে ভালো থাকে ব্যাবহারের পর
  • থিম এ যাতে Built-in security enhancements থাকে
  • SEO Friendly যাতে হয়
  • ডিজাইন যাতে সুন্দর হয়

থিম আপডেট হয় কিনা অথর দ্বারা তা ও মাথায় রাখবেন ।

Database Optimize করুনঃ

আগে আসুন জানি Database জিনিসটা কি ? আপনার দেহ টাকেই ধরুন । এই দেহের সব কিছু সম্পর্কে তথ্য , ক্রিয়া কলাপ , সাড়া ডান সবই করে থাকে আপনার মস্তিষ্ক । আর মস্তিষ্কের নির্দেশ অনুযায়ী আপনার সম্পূর্ণ দেহ সে অনুসারে কাজ করে । তেমনি Database  তা হচ্ছে সেই মিস্তিস্ক আর অন্যান্য জিনিস গুলো হচ্ছে দেহের অংশ ।

এখন কেউ আপনার সাইট এ ঢুকার চেষ্টা করলে একটা নির্দেশ যায় Database  এ এবং সম্পূর্ণ Database  পড়ার পর আপনার ব্রাউজার নির্দেশ পায় কোন কোন জিনিস আপনাকে প্রদর্শন করতে হবে এবং সে অনুসারে আপনার সামনে সাইট এ প্রদর্শিত হয় ।

সুতরাং Database  যদি বড় হয় , অনেক জিনিস থাকে অপ্রয়োজনীয় তাহলে Database  পড়তে সার্ভার সময় বেশি নিবে ফলে সাইট স্লও হয়ে যাবে । তাই Database  কে যতটা সম্ভব ছোট রাখবেন ।

Database  Optimize করার জন্য WP-DB Manager  এই প্লাগিনটা ব্যাবহার করতে পারেন  ।

wordpress database

প্লাগিনটা ইন্সটল এর পর আপনি বাম দিকে Database নামে অপশন দেখতে পাবেন ।

Backup DB submenu তে গিয়ে Database backup নিন

backup wordpress database

Repair DB submenu থেকে Database repair  করুন

repair wordpress database

Optimize DB submenu থেকে Database optimize করুন ।

optimize wordpress database

ধরুন আপনি আগে কোন প্লাগিন ইন্সটল করে ওটার অপশন পরিবর্তন করে ছিলেন । কিন্তু সেই প্লাগিনটা আপনি আর ব্যাবহার করেন না । মানে ডিলিট করে দিয়েছেন । কিন্তু সেই প্লাগিনটার সেটিং গুলো ঠিকই Database এ রয়ে গেছে । এই সেটিং টার আমাদের দরকার নেই । সুতরাং আমরা এটা ডিলিট করে দিয়ে Database Size কমাতে পারি । এর জন্য আপনাকে Emplty/Drop Tables এ গিয়ে সেই সেটিংস্‌ টা খুঁজে বের করতে হবে এবং টা ডিলিট করে দিন ।

ইমেজ অপ্টিমাইজ করুনঃ

ছবির ব্যাপারে আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে । একটি সাইট স্লও করার পিছনে বড় সাইজ এর ছবির মূল ভূমিকা থাকে । ছবির ব্যাপারে নিচের জিনিসগুলো মেনে চলবেনঃ

সবসময় 8-bit PNG ছবি ব্যাবহার করবেন । যদি দেখেন ছবিটা অনেক কমপ্লেক্স তাহলে JPEG বা 24-bit PNG ব্যাবহার করবেন ।সবচেয়ে ছোট সাইজ হয় ছবির GIF format ব্যাবহার করলে ।

cruise side ad
কোন বড় ছবিকে ছোট আকারে ব্যাবহার করতে হলে HTML কোড দিয়ে ছোট করবেন না । এতে সাইজ টা ছোট দেখা যায় কিন্তু ফাইল সাইজ সেই বড়ই থাকে । তাই কোন ইমেজ এডিটর এ ইমেজটি নিয়ে সাইজ ছোট করে সেভ করুন । এতে ফাইল সাইজ ও ছোট হয়ে যাবে ।
WP Smush.it  এই প্লাগিনটি ব্যাবহার করতে পারেন । এটা Yahoo এর ইমেজ Optimizer ব্যাবহার করে আপনার সাইট এর ইমেজ এর ফাইল সাইজ কমিয়ে ফেলে ।

smush.it exampleআপনার সাইট এ কোন ইমেজ আপলোড করার আগে TinyPNG এই সাইট এ গিয়ে ইমেজ গুলো Compress করে নিন ।

আগে(File size: 57 KB)        পরে( File size: 16 KB )  

jQuery Image Lazy Load WP এই প্লাগিনটি ব্যাবহারের ফলে আপনার সাইট এ যখন কেউ ঢুকবে তখন শুধু প্রথম ইমেজ গুলো লোড হবে । যখন Scroll করে নিচে যাবে যখন বাকি ইমেজ গুলো লোড হবে । ফলে সাইট ফাস্ট হবে ।

Cache Plugin ব্যাবহার করুনঃ

Cache প্লাগিন ব্যাবহার করলে আপনার সাইট এর কমন জিনিস গুলো যেমনঃ হেডার, ফুটার , সাইডবার এগুলো বার বার লোড হয় না । অস্থায়ী ভাবে ব্রাউজার এগুলো সেভ করে রাখে । অনেক Cache প্লাগিন আছে । এদের মধ্যে ভালো হচ্ছে W3 Total Cache, WP Super Cache । এদের মধ্যে যেকোনো একটা ব্যাবহার করুন ।

w3 total cache page cachingContent Delivery Network (CDN) ব্যাবহার করুনঃ

CDN ব্যাবহারের ফলে আপনার সাইট এর স্পীড যেমন বাড়বে তেমনি সিকিউরিটি ও বৃদ্ধি পায় । পেইড CDN ব্যাবহারের চেষ্টা করবেন । ফ্রী CDN এর মধ্যে সব চেয়ে ভালো হচ্ছে Cloude Flare । এটা ২ জিবি ব্যান্ডউইথ আপনাকে ফ্রী দিবে প্রত্যেক মাসে ।

CloudFlare Logo

পৃথিবীর সব বড় বড় সাইট CDN ব্যাবহার করে । যেমন ফেসবুক ব্যাবহার করে তাদের নিজস্ব fbcdn.net ।

3rd Party Script:

বিভিন্ন সাইট থেকে আমরা অনেক সময় অনেক কিছু আমাদের সাইতে এ যুক্ত করার সময় আমাদেরকে একটি JavaScript দিয়ে বলে এগুলো Header এ ব্যাবহার করতে । কিন্তু এগুলো Header এ ব্যাবহার না করে আপনি Footer এ করবেন । তাহলে আপনার পুরো সাইট লোড হয়ার পর একদম শেষে গিয়ে এইসব স্ক্রিপ্ট লোড হবে । এতে সাইট স্লও হবে কম ।

pingbacks and trackbacks বন্ধ করুনঃ

এটা বন্ধ করতে settings>>Discussion এ যান এবং প্রথম ২ টি বক্স Uncheck করে দিন ।

এই ছিল আমার জানা মতে উপায়গুলো । আপনি যদি আরও উপায় জেনে থাকেন তাহলে মন্তব্বে বলুন ।

এখন আবার এখান থেকে আপনার সাইট এর স্পীড মাপুন । দেখুন কত টুকু বেড়েছে ।

একটি অনুরোধঃ আমার এই লেখাটি কেউ যদি কপি করে নিজের সাইট এ প্রকাশ করতে চান তাহলে লেখার একদম শেষে মূল লেখক হিসেবে আমার নামটি উল্লেখ করলে কৃতার্থ হব।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s